এস এ গেমসের বাংলাদেশ দলে জামাল-ইয়াসিন-জীবন

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ ফুটবল বাছাইয়ের মাঝপথে বাংলাদেশ। ৮ ম্যাচের চারটি শেষ হয়েছে ইতিমধ্যে। মাঝে লম্বা বিরতি-চার মাসেরও বেশি। আগামী বছর ২৬ মার্চ ঢাকায় পঞ্চম ম্যাচটি খেলবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান।



বৃহস্পতিবার রাতে মাসকাটে ওমানের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলে আজ (শুক্রবার) ঢাকায় ফিরেছে জাতীয় ফুটবল দল। কোচ জেমি ডে’ও ফিরেছেন দলের সঙ্গে। কারণ, আপাতত বিশ্বকাপের ম্যাচ ভুলে বাংলাদেশের ফুটবলারদের ধ্যান-জ্ঞ্যান এসএ (সাউথ এশিয়ান) গেমস।

১ ডিসেম্বর নেপালে শুরু হবে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। যেখানে অন্যতম সেরা আকর্ষণ ফুটবল। যে ফুটবলে বাংলাদেশের হাতে প্রথম স্বর্ণ ধরা দিয়েছিল ১৯৯৯ সালে, এই নেপালেই। দ্বিতীয়বার ২০১০ সালে ঢাকায়। কিন্তু ২০১৬ সালে ভারতের গুয়াহাটিতে সেমিফাইনালে ভারতের কাছে ৩-০ গোলে হেরে স্বর্ণ হাতছাড়া হয় বাংলাদেশের। এবার সেই স্বর্ণ পুনরুদ্ধারের মিশন লাল-সবুজের দেশের।



সেই মিশনে বাংলাদেশকে সম্ভাবনার সামনে নিয়ে এসেছেন ইংলিশ কোচ জেমি ডে। দায়িত্ব নেয়ার পর বাংলাদেশটাকে বদলে দিয়েছেন এই ব্রিটিশ। তাইতো ফুটবলামোদীদের প্রত্যাশা জেমির হাত ধরে আবার দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে ফুটবলের স্বর্ণ ফিরে আসবে বাংলাদেশের।

জেমি ডে ‘আগে বলেছিলাম। এখনো বলছি-এখন আমাদের লক্ষ্য এসএ গেমসে চ্যাম্পিয়ন হওয়া।’

এসএ গেমস ফুটবলে খেলবে অনূর্ধ্ব-২৩ দল। নিয়ম অনুযায়ী সিনিয়র কোটায় ৩ জন নিতে পারবেন কোচ। সবার দৃষ্টি কোন তিন সিনিয়র তিনি রাখবেন এসএ গেমসের স্বর্ণ ফিরিয়ে আনার মিশনে।



নাম্বার ওয়ান চয়েজ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। বাকি দুই জন হতে পারে লড়াকু ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান ও আক্রমনভাগের নাবিব নেওয়াজ জীবন। হিসেবটা পরিস্কার-ডিফেন্সে ইয়াসিন খান, মাঝমাঠে জামাল ভূঁইয়া ও আক্রমণভাগের নাবিব নেওয়াজ জীবনকে রেখেই জেমি ডে দল গড়বেন এসএ গেমসের।

এসএ গেমসের জন্য সম্ভাব্য একাদশ

আনিসুর রহমান জিকু (গোলরক্ষক), পাপ্পু হোসেন, মাহফুজ হাসান প্রীতম, বিশ্বনাথ ঘোষ, রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, টুটুল হোসেন বাদশা, ইয়াছিন আরাফাত, রিয়াদুল হাসান রাফি, মনজুরুর রহমান মানিক/সুশান্ত ত্রিপুরা, জামাল ভূঁইয়া, বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, আরিফুর রহমান, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, জুয়েল রানা/ফজলে রাব্বি, রাকিব হাসান, মাহবুবুর রহমান সুফিল, সাদ উদ্দিন ও নাবিব নেয়াজ জীবন।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *